ভাষা শহীদদের স্মরণে রেজুরকুল যুব ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে ফুটবল খেলার শুভ উদ্বোধন

শফিউল শাহীন, বার্তা প্রধান কক্সটিভি
  • প্রকাশিত সময় : শনিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০২০

উখিয়া উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের রেজুরকুল গ্রামে যুবকদের নিয়ে গড়ে ওঠা রেজুরকুল যুব ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে ২১ ফেব্রুয়ারী শুক্রবার বিকেল ৩টায় রেজুরকুল সবুজ চত্বর খেলার মাঠে, ভাষা শহীদদের স্মরণে রেজুরকুল গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০২০ শুভ উদ্বোধন করা হয়।

উক্ত শুভ উদ্বোধনী খেলায় উখিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অধ্যাপক শাহ আলমের সভাপতিত্বে সংক্ষিপ্ত আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন উখিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও রাজাপালং ইউনিয়নের বারবার নির্বাচিত চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী, বিশেষ অতিথিদের মধ্যে ছিলেন, কৃষকলীগ নেতা আকতার উদ্দিন টুনু, মেদু বড়ুয়া, মাষ্টার অমৃত কুমার বড়ুয়া, হাসান জামাল রাজু, ম্যানেজার এসোসিয়েশনের সভাপতি রুপন বড়ুয়া, নুরুল কবির মেম্বার, জসিম উদ্দিন মুছা, দিদারুল অালম, অাহসান উল্লাহ বাবর সহ অনেক নেতৃবৃন্দ।

এতে উদ্বোধক ছিলেন ইনানী হোটেল অর্কিড ব্লুর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইব্রাহিম খলিল মামুন।

আয়োজকদের মধ্যে ছিলেন রেজুরকুল যুব ঐক্য পরিষদের সভাপতি রুবেল বড়ুয়া, সাধারণ সম্পাদক তপন বড়ুয়া ও আপেল বড়ুয়াসহ রেজুরকুল যুব ঐক্য পরিষদের সকল নেতা কর্মীরা বলেছেন ২১ ফেব্রুয়ারিকে নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরার জন্য আমাদের এ উদ্যোগ।

উদ্বোধনী খেলায় থাইংখালী বনাম হিজিলিয়া খেলোয়ার সমিতির মধ্যে হাডাহাডী খেলায় গোলকরতে না পেরে টাইব্রেকারে থাইংখালীকে পরাজিত করেন।

সংবাদটি আপনার ফেইসবুকে শেয়ার করুন...

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ :

কক্সবাজারে মরণব্যাধি করোনা ভাইরাসের কারনে বাজারে হঠাৎ করেই হ্যান্ড স্যানিটাইজারের সঙ্কট দেখা দিয়েছে। ফলে মানবিক বিবেচনায় নিজেদের টাকায় হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরীর পর তা সাধারণ জনগনের মাঝে বিনামূল্যে বিতরণ করে বিরল দৃষ্টান্ত দেখিয়েছেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক ও ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ছাত্রলীগের সভাপতি মইন উদ্দিনের নেতৃত্বে একদল ছাত্রলীগ কর্মীর এমন মহতি উদ্যোগ সবার মাঝে প্রশংসা কুড়িয়েছে।
এর আগে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বাঁচার জন্য সাধারণ মানুষের মাঝে সচেতনতা তৈরী সরূপ হাতকে জীবাণুমুক্ত রাখতে সারাদেশে হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরী এবং বিতরণের নির্দেশ দেয় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। এরপর নিজেদের তত্বাবধানে হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরির কাজ শুরু করে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।
রোববার বিকেল থেকে কক্সবাজারে হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরির কাজে নামে ছাত্রলীগ। তারা ১ম ধাপে তিন শ’ বোতল স্যানিটাইজার তৈরি করে। পরবর্তীতে ছোট বড় আরো ২শ’ বোতল স্যানিটাইজার বানানো হয়। পর্যায়ক্রমে প্রয়োজন সাপেক্ষে আরো ৫শ’ স্যানিটাইজার এবং মাস্ক বানিয়ে সম্পন্ন মানবিক বিবেচনায় তা সাধারণ মানুষের মাঝে বিনামূল্যে বিতরণ করা হবে বলে জানিয়েছেন ছাত্রলীগ নেতা মইন। সমসাময়িক সঙ্কটময় মুহুর্তে ব্যতিক্রমী এমন মহৎ কাজের অন্যতম প্রধান উদ্যোক্তা জেলা ছাত্রলীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক ও ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ছাত্রলীগের সভাপতি মইন উদ্দীন জানায়, ফার্মাসির কয়েকজন শিক্ষার্থীর সহযোগিতায় হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরির উদ্যোগ নেন তারা। নিজেদের তৈরিকৃত এসব স্যানিটাইজার বিনামূল্যে সাধারণ মানুষের মাঝে বিতরণ করছেন। সবগুলো স্যানিটাইজার স্বাস্থ্যসম্মতভাবে তৈরী হচ্ছে বলেও জানান মইন উদ্দিন। এদিকে প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস নিয়ে দেশের এই সংকটময় মুহুর্তে একজন ছাত্রলীগ নেতার এমন উদারতা শুধু কক্সবাজার নয়, সারাদেশের ছাত্র রাজনীতির ইতিহাসে অনন্য উচ্চতার মাইল ফলক হয়ে থাকবে বলে মন্তব্য করেছেন এখানকার রাজনৈতিক বোদ্ধারা।

মানবতার ফেরিওয়ালা ছাত্রলীগ নেতা মইন