মোদিকে জাকালো সংবর্ধনার প্রস্তুতি, ২০ হাজার কর্মীকে আমন্ত্রণ | কক্সটিভি

কক্সটিভি নিউজ ডেস্কঃ
  • প্রকাশিত সময় : বৃহস্পতিবার, ২৩ মে, ২০১৯

ভারতের পার্লামেন্ট নির্বাচনের ভোট গণনা চলছে।প্রাপ্ত প্রাথমিক ফলাফলে দেখা যাচ্ছে ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টির ফের সরকার গঠন সময়ের ব্যাপার মাত্র।ইতিমধ্যে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতার পাওয়ার মতো আসনে জয়ের আভাস মিলেছে মোদির দলের।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, ৩২৭ আসনে বিজেপির নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট এগিয়ে আছে। আর কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ জোট ১০২ আসনে এগিয়ে আছে।অন্যান্যরা ১১১টি আসনে এগিয়ে। আর আনন্দবাজারের খবরে বলা হয়েছে বিজেপি ৩২৬ আসনে আর কংগ্রেস ১০৪ আসনে এগিয়ে আছেন। অর্থাৱ সময় যত গড়াচ্ছে নরেন্দ্র মোদির জয়ের ব্যবধান তত বাড়ছে।

এদিকে লোকসভা নির্বাচনে নরেন্দ্র মোদির বিজয় সুনিশ্চিত ভেবে দলের ২০ হাজার কর্মীকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে বিজেপি।

আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজধানী নয়াদিল্লিতে দলের সদর দফতরে যাবেন এসব কর্মী। বিজেপি নেতারা বলছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে জাঁকালো সংবর্ধনা দিতেই এমন আয়োজন।

আর জয়ী নেতাদের ২৫ মের মধ্যে দিল্লিতে আসতে আমন্ত্রণ জানিয়েছে বিজেপি। বুথফেরত জরিপে জয়ের আভাস পেয়ে গত মঙ্গলবার এনডিএ একটি বৈঠক করে। সেখানে মোদিকে ফুলের মালা দিয়ে অভ্যর্থনা জানানো হয়।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জানিয়েছেন, তাঁর দল পাঁচ বছর ক্ষমতায় থাকার পরে ঐতিহাসিক ভাবে দ্বিতীয় পর্যায়ে ক্ষমতায় আসতে চলেছে পূর্ণ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে।

ভারতের লোকসভা নির্বাচনে বৃহস্পতিবার সকাল আটটা থেকে ভোট গণনা চলছে। সরকার গঠনের জন্য ৫৪৩ আসনের জন্য কোনো দলকে পেতে হবে ২৭২টি।

১১ এপ্রিল শুরু হয়ে গত ১৯ মে শেষ হয় ভারতে পার্লামেন্ট নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। ৯০ কোটি ভোটারের জন্য ৯ লাখ কেন্দ্রে মোট সাত পর্বে এই ভোটগ্রহণ চলে।প্রায় সব জরিপে বলা হয়, ক্ষমতায় থাকছে বিজেপি। আবার প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন নরেন্দ্র মোদি। বুথফেরত জরিপের পর উজ্জীবিত বিজেপি। তবে বুধবার বিরোধী কংগ্রেস দলের পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হয়েছে, বুথফেরত সমীক্ষা ভুয়া। ক্ষমতায় যেতে পারবে না মোদি। সংসদ হতে পারে ঝুলন্ত। শেষ পর্যন্ত দেখা যাচ্ছে বুথফেরত জরিপই সত্য হচ্ছে।

সংবাদটি আপনার ফেইসবুকে শেয়ার করুন...

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ :